এ পি জে আব্দুল কালামের বিখ্যাত ৩৩টি বাণী

Aug 03, 2019 02:36 pm
এ পি জে আব্দুল কালাম

 

শিক্ষা ও কর্ম জগতের যারা অনুপ্রেরণা যোগাতে সক্ষম হয়, তাদের একজন হলেন আবুল ফকির জয়নিন আব্দুল কালাম। দরিদ্রতার অন্ধকার প্রচেষ্টাকে হারাতে পারে না, তাকে আর একবার প্রমাণ করে দেখিয়ে দিয়েছেন তিনি । রামেশ্বরমে দরিদ্র এক মাঝির সন্তান থেকে ভারতের ১১তম রাষ্ট্রপতি, খবরের কাগজের বিক্রেতা থেকে ভারতের মিসাইল ম্যান, সামান্য মধ্যমানের ছাত্র থেকে পদ্মভূষণ, পদ্মবিভূষণ প্রভৃতি পুরস্কার জয়ী । এই অবিস্মরণীয় সাফল্যের কারণ কী ছিল, তা তিনি তার আত্মজীবনীমূলক বইগুলোর মধ্যে লিপিবদ্ধ করেছেন । সেখান থেকে কিছু অবিস্মরণীয় বাণী উল্লেখ করা হলো –

১) স্বপ্ন সেটা নয়, যা তুমি ঘুমিয়ে দেখো। স্বপ্ন সেটা, যার তাড়নায় তুমি ঘুমাতে পারো না।

২) সূর্যের মতো দীপ্তিমান হতে গেলে প্রথমে সূর্যের মতো পুড়তে হবে।

৩) যদি তুমি তোমার কাজকে শুধু স্যালুট কর, তবে তোমায় কাকেও স্যালুট করতে হবে না । কিন্তু যদি তুমি কাজে অবহেলা করো, কাজকে অসম্মান করো, কাজে ফাঁকি মারো, তবে তোমায় সকলকে স্যালুট করতে হবে।

৪) যারা হৃদয় দিয়ে কাজ করতে পারে না তাদের অর্জন হয় অন্তঃসারশূন্য। সমস্ত সাফল্য হয় উদ্দেশ্যহীন ও তিক্ততাপূর্ণ।

৫) ভিন্নভাবে চিন্তা করা ও উদ্ভাবনের সাহস থাকতে হবে। অসম্ভব জিনিস আবিষ্কারের সাহস দেখাতে হবে। সমস্ত সমস্যাকে জয় করে সফল হতে হবে। মহান গুণাবলী দ্বারা নিজেদের পরিচালিত করতে হবে। তরুণদের প্রতি এই হলো আমার বার্তা ।

৬) জীবন খুবই কঠিন একটি খেলা। ব্যক্তি হিসেবে মৌলিক অধিকার ধরে রাখার মাধ্যমে তুমি জয়ী হতে পারবে।

৭) আকাশের দিকে তাকাও, দেখবে তুমি একা নও, মহাবিশ্ব তোমার সাথে আছে তোমার বন্ধু হয়ে ।

৮) যারা স্বপ্ন দেখে, যারা কাজ করে, তাদের প্রতিষ্ঠা দেয়ার জন্য মহাবিশ্ব সবসময় চেষ্টা চালিয়ে যায়।

৯) উৎকর্ষ একটি চলমান প্রক্রিয়া। এটি কোনো আবশ্যিক ঘটনা নয়।

১০) আমি বিশ্বাস করি, যদি কোনো দেশকে দুর্নীতিমুক্ত করতে হয়, সেখানে তিনজন এই ভূমিকা পালন করতে সক্ষম হবে। এক বাবা, দুই মা, তিন হলো শিক্ষক।

১১) সমস্যা এলে কখনো এড়িয়ে যাবে না । মুখোমুখি রুখে দাঁড়াবে। মনে রাখবে, সমস্যাহীন জয়ে কোনো আনন্দ নেই। আর সব সমস্যার সমাধান আছে।

১২) সারা জীবনের অভিজ্ঞতা দিয়ে আমি চারটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের উপর আলোকপাত করি।
এক) জীবনের লক্ষ্য নির্ধারণ করা,
দুই) জ্ঞান অর্জন করা,
তিন) কঠিন সমস্যায় পিছু না হটা
চার) কোনো কাজে সফলতা ও ব্যর্থতা দুটিতেই নেতৃত্ব দেয়া।

১৩) সমস্যাকে কখনো তোমার উপর চেপে বসতে দেবে না। হতাশ না হয়ে, তুমি দেখো স্বপ্ন পূরণের কতটা কাছে তুমি এলে।

১৪) সাহস হারাবে না। আর লক্ষ্য রেখ জীবনের একটি দিনও যাতে ব্যর্থ না যায় ।

১৫) যে লোকেরা বলে, ‘তুমি পারো না’ এবং ‘তুমি পারবে না’ সম্ভবত তারাই বিশ্বাস করে যে, তুমি পারবে।

১৬) স্বপ্ন বাস্তবে রূপায়িত করার পূর্বে, স্বপ্ন দেখা প্রয়োজন।

১৭) ঘোড়া ও পাখি কোনো দিন অসুখী নয়। কারণ তারা অপর ঘোড়া বা অপর পাখিকে সুখী করার চেষ্টা করে না।

১৮) আমি সুদর্শন নই, কিন্তু আমার হাত তাদের উপর বাড়িয়ে দেই, যাদের আমাকে প্রয়োজন । সৌন্দর্য থাকে মানুষের মুখে নয়, হৃদয়ে।

১৯) মহৎ মানুষেরা ধর্মকে মিত্রতা স্থাপনের কাজে ব্যবহার করে । আর সংকীর্ণ মানুষেরা ধর্মকে যুদ্ধের অস্ত্র হিসেবে কাজে লাগায়।

২০) সেই ভালো শিক্ষার্থী হয়, যে প্রশ্ন করতে পারে। তাই ছাত্র-ছাত্রীদের প্রশ্ন করার সুযোগ দিতে হবে।

২১) যুব সমাজকে চাকরির প্রার্থী না হয়ে চাকরিদাতা হওয়া প্রয়োজন।

২২) আমার কাছে নেগেটিভ এক্সপেরিয়েন্স বলে কিছুই নেই । যদি আমি কাজকে ভালোবাসি, তাহলে শত ব্যস্ততার মধ্যেও কাজটি করার জন্য সময় বের করে নিতে পারব।

২৩) ঈশ্বর তাদেরকেই সাহায্য করে যারা কঠোর পরিশ্রমী হয়।

২৪) সমস্যা উপস্থিত না হলে, সফলতার প্রকৃত আনন্দ উপভোগ করা যায় না।

২৫) প্রথম জয়ের পর বিশ্রাম নেয়া উচিত নয়। যদি দ্বিতীয় বার পরাজিত হও, লোকে বলবে প্রথম জয় তুমি ভাগ্যের জোরে জিতেছ।

২৬) যদি তুমি হেরে যাও বা ফেল করো তাহলে ভেঙে পড়ো না। ফেল শব্দের অপর অর্থ হলো FIRST ATEM IN SUCCESS । অর্থাৎ শিক্ষার প্রথম ধাপ।

২৭) যা তুমি ভাববে, চিন্তা করবে, তুমি ভবিষ্যতে সেভাবেই তৈরী হবে।

২৮) একটি ভালো বই হাজার বন্ধুর সমান, আর একটি ভালো বন্ধু একটি লাইব্রেরির সমান ।

২৯) দেশের সবথেকে বুদ্ধিমান মানুষেরা লাস্ট বেঞ্চ থেকে উঠে আসে।

৩০) তুমি তোমার ভবিষ্যতকে বদলাতে পারবে না, কিন্তু তোমার অভ্যাস বদলাতে পারবে। আর এই অভ্যাস তোমার ভবিষ্যতকে বদলে দেবে।

৩১) সফলতার কাহিনী অপেক্ষা ব্যর্থতার কাহিনী পড়ো। সেখান থেকে সফলতার দিশা খুঁজে পাবে।

৩২) যদি তোমার সবকিছু শেষ হয়ে যায়, ভেঙে পড়ো না। মনে রাখবে এন্ড শব্দের আরেকটি অর্থ রয়েছে। এণ্ড ফর নেভার ডাই। অর্থাৎ প্রচেষ্টার মৃত্যু নেই।

৩৩) প্রতিদিন সকালে পাঁচটি কথা অবশ্যই বলবে –
এক) আমি সেরা।
দুই) আমি করতে পারি।
তিন) সৃষ্টিকর্তা সব সময় আমার সাথে আছে।
চার ) আমি জয়ী।
পাঁচ) আজকের দিনটা আমার।