হাজারো কবিতা একজনই ববিতা

Aug 03, 2019 03:21 pm
ববিতা

 

একমাত্র ছেলে অনিক কানাডা থাকেন বিধায় বেশ কয়েক বছর ধরে এ দেশের চলচ্চিত্রাঙ্গনের পথিকৃৎ আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন নায়িকা ববিতা তার জন্মদিন কখনো ঢাকায় আবার কখনো কানাডায় উদ্যাপন করেন। তবে এবার ববিতা তার জন্মদিনের সময় ঢাকাতেই আছেন। কিন্তু এবারের জন্মদিনে ববিতা ঢাকায় থাকলেও তার দুই বোন- ছোট বোন চম্পা দেশের বাইরে, বড় বোন সুচন্দার মেয়ে দেশের বাইরে থাকায় এবং অন্যান্য আত্মীয়স্বজনও দেশের বাইরে থাকায় এবারের জন্মদিন নিয়ে ববিতার বিশেষ কোনো পরিকল্পনা নেই। বিগত বেশ কয়েক বছর ধরে অসহায় সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের পাশে দাঁড়ানো সংগঠন ‘ডিসট্রেস চিলড্রেন ইনফ্যান্ট ইন্টারন্যাশনাল’র শুভেচ্ছা দূত হিসেবে ববিতা কাজ করছেন। জন্মদিনে অসহায় সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের সাথে জন্মদিনের বিশেষ একটা সময় কাটালেও এবার তা থেকেও বিরত থাকছেন তিনি। কারণ গেল ঈদের পরপরই তিনি তার দুই বোন সুচন্দা ও চম্পাকে নিয়ে সেসব সুবিধাবঞ্চিত শিশুর সাথে বিশেষ ঈদ উদযাপন করেছেন।

আপাতত নিজের ব্যক্তিগত কাজ নিয়ে ভীষণ ব্যস্ত সময় পার করছেন বিধায় এবারের জন্মদিনে কোনো রকম বিশেষ আয়োজন থেকে দূরেই আছেন ববিতা। নিজের জন্মদিন প্রসঙ্গে ববিতা বলেন, ‘একজন মুসলমান হিসেবে আমরা বিশ^াস করি একটি নির্দিষ্ট সময়ের জন্য আমরা এই পৃথিবীতে এসেছি। আমাদের যেমন জন্ম আছে, ঠিক তেমনি আছে মৃত্যু। একটি নির্ধারিত সময়েই মহান আল্লাহ আমাদের ভাগ্যে মৃত্যু রেখেছেন। তাই জন্মদিন আসা মানেই হলো আরো একধাপ মৃত্যুর দিকে এগিয়ে যাচ্ছি। বয়স কমেই যাচ্ছে। এই দিনটিকে ঘিরে অনেক বেশি আনন্দ ফুর্তি করার আসলে তেমন কিছু নেই। তার মানে আমি এটাও বলছি না যে, সেলিব্রেট করা যাবে না। করা যাবে, তবে তা যেন সীমাবদ্ধতার মধ্যেই হয়।’ ববিতার জন্মদিনের শুভ প্রহর শুরু হয় তার একমাত্র ছেলে অনিকের সাথে কথা বলে। জন্মদিনের শুরুর প্রহরেই অনিক কানাডা থেকে তাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা পাঠানোর পাশাপাশি তার সাথে কথা বলেন। ববিতা বলেন, অনিক বলে, ইউ আর দ্য বেস্ট মাদার ইন দ্য ওয়ার্ল্ড। সত্যি বলতে কি সব সন্তানের কাছেই তার মা পৃথিবীর সেরা মা। আমি বুঝি অনিক আমাকে কতটা ভালোবাসে, অনুভব করে, শ্রদ্ধা করে। এদিকে এখনো প্রায়ই ববিতা নতুন নতুন সিনেমাতে কাজ করার প্রস্তাব পান। এরই মধ্যে আরো দুটি সিনেমাতে কাজ করার প্রস্তাব পেয়েছেন।

ববিতা বলেন, ‘দু’জন পরিচালকের নাম বলতে চাচ্ছি না। কারণ আমার স্থানে অন্যরা এখন কাজ করছেন। আমি তাদের নাম প্রকাশ করতে চাই না। কারণ তারা কষ্ট পাবেন। অভিনয় থেকে শিল্পীর গুডবাই বলতে কিছু নেই। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত শিল্পী অভিনয় করতে পারেন। তবে চরিত্র ভালো লাগা-না-লাগা একান্তই তার ব্যক্তিগত ব্যাপার। সত্যজিৎ রায়ের ‘অশনি সংকেত’ সিনেমাতে অভিনয় করে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে নিজের খ্যাতি গড়ে তোলেন ববিতা।