কখন পানি খেলে সবচেয়ে বেশি উপকার পাবেন!

Aug 03, 2019 03:44 pm
কখন পানি খেলে সবচেয়ে বেশি উপকার পাবেন!

 

বিশেষজ্ঞরা বলেন, প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের দিনে তিন থেকে ৪ লিটার পানি খাওয়া প্রয়োজন, সেও জানা। তাও যখন ছোট খাটো সমস্যায় চিকিৎসকের কাছে যান, নতুন করে পানি পান বাড়াতে বলে দেন ডাক্তার সাহেব। তার মানে আপনি ঠিক সময়ে পানি খাচ্ছেন না। যখন খাওয়া উচিত, তখন খাচ্ছেন না।

পানি খাওয়ার নিয়মগুলো জেনে নিন

সকালে ঘুম থেকে উঠে

দিন শুরু হোক সকালে এক গ্লাস পানি খেয়ে। এতে সারা শরীরে জমে থাকা টক্সিক দূর হয়ে যায়। ফলে দিনভর বেশ চনমনে লাগে। ঠাণ্ডা পানি খাবেন না এই সময়। সামান্য উষ্ণ অথবা ঘরের তাপমাত্রার পানি পান করুন।

মূল খাবার খাওয়ার আগে

দিনের অথবা রাতের মূল খাবার খাওয়ার আগে এক গ্লাস পানি খান। এতে পেট ভর্তি থাকবে। তাই খুব বেশি খাওয়া থেকে বিরত থাকবেন আপনি। তাছাড়া খাবার খাওয়ার আধ ঘণ্টা আগে এক গ্লাস পানি খেলে স্বাদ ব্যবস্থা সতেজ হয় এবং খাবারের স্বাদ বেশি পাবেন আপনি।

যখন খিদে পাবে

অনেক সময় কাজের ফাঁকে বা নিতান্ত অসময়ে খিদে পেয়ে যায় আপনার। আসলে খিদে নয়, পিপাসা পায় আপনার। শরীর শুকনো অর্থাৎ ডিহাইড্রেটেড হয়ে গেছে আপনার। তাই কিছু না খেলেও চলবে, শুধু এক গ্লাস পানি খেতে হবে এমন সময়।

ওয়র্ক আউটের আগে পরে

ওয়র্ক আউটেও আমাদের শরীর ডিহাইড্রেটেড হওয়ার আশঙ্কা থাকে। তাই ভারী শরীরচর্চার আগে ২-৩ গ্লাস পানি পান করুন। শরীরে তরলের ভারসাম্য বজায় থাকবে। কিন্তু একবারে বেশি পানি খাবেন না, পেটে ব্যথা হতে পারে।

অসুস্থ লাগলে

জ্বর, সর্দি-কাশি হলে বা ছোট বড় অসুস্থতায় পর্যাপ্ত জল খান। দেহের টক্সিক দূর করতে সাহায্য করবে। খুব তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে উঠবেন আপনি।

ক্লান্ত লাগলে

শরীর যদি ভীষণ ক্লান্ত লাগে, আর বিশ্রাম নেয়ার সময় না থাকে আপনার কাছে, তবে পানি খান। ক্লান্তির একটা বড় কারণ শরীর ডিহাইড্রেটেড হয়ে যাওয়া। বিছানায় শোয়ার ফুরসত পেলেন না যখন, এক গ্লাস পানিতে কাজ চালান। মস্তিষ্ক সচল রাখতে সাহায্য করে।